বৃহস্পতিবার, ৬ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২৩শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
আজ বৃহস্পতিবার | ৬ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
Home » Slider »

ভাইয়ের আঘাতে আরিফ মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে হাসপাতালে

মোঃ আমির হোসেন

শনিবার, ০১ মে ২০২১ | ৯:৪৬ পূর্বাহ্ণ | 56Views

ভাইয়ের আঘাতে আরিফ মৃত্যুর সাথে  পাঞ্জা লড়ছে হাসপাতালে

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সিদ্ধিরগঞ্জ নাসিক ১ নং ওয়ার্ডে হীরাঝিল আবাসিক এলাকায় ১১ নং গলি অবসর প্রাপ্ত পুলিশ কন্সট্রবল শামসুল এর ছোট ছেলে এর ধারালো অস্ত্র বটি দিয়ে বড় ভাইকে কুপিয়ে হত্যার জন্য আক্রমন করছে। গত শুক্রবার বিকেলে ৪ টার সময় হীরাঝিল আবাসিক এলাকায় অবসর প্রাপ্ত পুলিশ কন্সট্রবল শামসুলের ছেলেদের মধ্যে ঘটনাটি ঘটেছে।ফারজান আক্তার সাথী (২৩) বাদী হয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় ৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে ।অভিযোগকারীরা হলেন সামছুল হক মিয়াজী( ৬৮) কামাল মিয়াজী (৪৫) শরীফ মিয়াজী (৩৮)হাবিব উল্লাহ(৩০)সাহেরা বেগম (২৮) সকলেই হীরাঝিল আবাসিক এলাকার বাসিন্ধা।আমার শ্বশুর,ভাসুর ,ননদও দেবর পৈত্তিক সম্পতি নিয়ে বিবাদিগন বিগত কয়েক বছর পূর্বহইতে আমার স্বামীর সাথে শত্রæতা পূর্ন মনোভাব পোষন করিয়া আসিতেছে। শ্বশুর আমার ফ্ল্যাটে আসিয়া এসির পানির পরা কে কেন্দ্র কওে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করিতে থাকে।আমার স্বামী প্রতিবাদ করিলে হাবিবুল্লাহ সহ অভিযোগকারীরা ধারালো ছুরি নিয়া ্আমার স্বামীকে মাথায় লক্ষ্য করিয়া ঘাই মারিয়া পিঠে ,পেটে সহ শরীলের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে।কামাল ও হাবিবুল্লাহ আমার চুলকে মুঠি ধরিয়া হেচকা টান দিয়ে মেঝেতে ফেলিয়া আমার কাপড় টানা হেচরা করিয়া শ্লীলতাহানী ঘটায়।ননদ সাহেরা খাতুন এলোপাতাড়ী লাথি মারিয়া তলপেটেবিভিন্ন স্থানে নীলাফুলা ও রক্ত জমাট জখম করে।কামাল মিয়াজী আমার আলমারী থেকে ৩ লক্ষ টাকা নিয়া গালমন্দ করে ও প্রাণ নাশের হুমকি প্রদান করে।একই এলাকায় আমার বোন বসবাস করে আমাদের রক্ষার জন্য বোন মিশু আসলে শ্বশুর বোনকে গলায় চাপিয়া ধরিয়া হত্যার চেষ্টা করে। আশ পাশের লোকজন আমাকে ও আমার স্বামীকে নারায়ণগঞ্জ ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে নিয়ে যায়।আরিফ মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে ।আমি প্রাথমিক চিকিৎসায় নিয়ে স্বামীর গুরুতর আহত হওয়ায় থানা অভিযোগ দায়ের করি।
ফারজানা আক্তার বিথী গণমাধ্যমকর্মীদের জানান,আমার স্বামী হাসপাতালে মৃত্যুও সাথে পাঞ্জা লড়ছে।অভিযোগকারীরা সম্পত্তি ও হত্যার উদ্যোশে আমাকে মারধর ও আমার স্বামীকে কুপিয়ে জখম করে।
সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক এস আই রিপন ঘটনার স্থলে আসেন এবং তদন্ত করেন। এস আই রিপন জানান ,তাদের পারিবারিক সমস্যার কারণে এই ধরণের ঘটনা ঘটেছে। ফারজান আক্তার সাথী বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ করেছে ।

-Advertisement-
সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  

ফেসবুকে যুক্ত থাকুন

-Advertisement-
-Advertisement-