শুক্রবার, ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
আজ শুক্রবার | ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
Home » Slider »

রূপগঞ্জে ১ মাসে ৬ লাশ উদ্ধার আইনশৃংখলার চরম অবনতি

শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১ | ১১:১৭ অপরাহ্ণ | 37Views

রূপগঞ্জে ১ মাসে ৬ লাশ উদ্ধার  আইনশৃংখলার চরম অবনতি

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি ঃ খুন, সন্ত্রাস, মাদক ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে রূপগঞ্জে আইনশৃংখলার চরম অবনতি ঘটেছে। রাজনৈতিক দ্বন্ধ ছাড়াও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে দিনদিন অশান্ত হয়ে উঠছে রূপগঞ্জ। গত ১ মাসে রূপগঞ্জের বিভিন্ন এলাকা থেকে ৬টি লাশ উদ্ধার হওয়ার ঘটনায় আতংক আরও বাড়ছে। ৬ লাশের প্রতিটি হত্যাকান্ড বলে ধারনা করছে পুলিশ। প্রতিটি ঘটনারই রূপগঞ্জ থানায় মামলা হয়েছে। এসব অজ্ঞাত হত্যাকান্ডকে ঘিরে চরম আতংকে রয়েছে এলাকাবাসী। একটি এলাকায় একই অপরাধ বারবার সংগঠিত হতে থাকলে সেখানকার আইনশৃংখলার অবনতি স্পষ্ট হয়ে উঠে।
সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, রূপগঞ্জে দিনদিন আইনশৃংখলার অবনতি হচ্ছে। হত্যা, মারামারি, জমি দখল, সন্ত্রাস, চাদাঁবাজি, আধিপত্য বিস্তার, মাদক ও রাজনৈতিক দ্বন্ধে রূপগঞ্জ এখন আতংকের নাম। সন্ধ্যা নামলেই এলাকাবাসীর মাঝে এক প্রকার আতংক বিরাজ করে। ভোরবেলা কার লাশ দেখতে হয় বা কোন অজ্ঞাত স্থানে কার লাশ পড়ে আছে এসব আতংকে রাত কাটে এলাকাবাসীর। গত ১ মাসে রূপগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে ৬ লাশ উদ্ধারে এলাকাবাসী ও আইনশৃংখলা বাহিনীকে ভাবিয়ে তুলেছে। হঠাৎ এত লাশ কিসের আলামত বহন করে এ প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে পুরু রূপগঞ্জে।
তথ্যানুসন্ধানে জানা যায়, গত ৬ জুলাই তারাবো পৌরসভার বরপা এলাকাস্থ সেবা সিএনজি পাম্পের সামনে থেকে অজ্ঞাত এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে রূপগঞ্জ থানা পুলিশ। এ ঘটনায় রূপগঞ্জ থানায় মামলা হয়েছে। গত ৮ জুলাই কায়েত পাড়া ইউনিয়নের চনপাড়া পুনর্বাসন এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও মাদক ব্যবসা নিয়ন্ত্রন করতে সামসু নামের এক যুবককে দিনে দুপুরে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। সে পুনর্বাসন কেন্দ্রের ৬ নং ওয়ার্ডের আব্দুল মান্নানের ছেলে। গত ৯ জুলাই ভূলতা ফ্লাইওভারের উপরে হাত বাধা অবস্থায় এক যুবকের লাশ উদ্ধার করে থানা পুলিশ। সে উপজেলার চারিতালুক এলাকার মিন্নত আলীর ছেলে। পুলিশের ধারনা অটো গাড়ী ছিনতাই করতেই এই হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে। গত ২৩ জুলাই উপজেলার চরপাড়া ও টেংরারটেক এলাকায় দুই যুবকের লাশ উদ্ধার করে থানা পুলিশ। তাদেরকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারনা পুলিশের। এ ঘটনায় রূপগঞ্জ থানায় পৃথক দুটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। নিখোঁজের একদিন পর জিয়াসমিন নামের এক রারীর লাশ উদ্ধার করে থানা পুলিশ। ২৫ জুন রাতে উপজেলার কায়েতপাড়া ইউনিয়নের চনপাড়া পুনর্বাসন কেন্দ্র এলাকার শীতলক্ষা নদীর ঘাট থেকে ওই নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত জিয়াসমিন বেগম উপজেলার তারাবো পৌরসভার বরপা শান্তিনগর এলাকার মৃত সামসুল হকের স্ত্রী । রূপগঞ্জের কায়েতপাড়া এলাকার একটি বিল থেকে ১৬ জুন এক কিশোরীর(১৪) লাশ উদ্ধার করে থানা পুলিশ। কিশোরীকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারনা পুলিশের।
এছাড়াও রূপগঞ্জে চুরি,ডাকাতি, লুট, অস্ত্রের মহড়াসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকান্ড বেড়েছে। গত ১৭ জুলাই রূপগঞ্জের তারাবো পৌরসভার বরাবো এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সারারাত তান্ডব চালিয়েছে সন্ত্রাসীরা। এ সময় তারা বাজারের দোকান বসত বাড়িসহ ২১টি জায়গা থেকে ৫০ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করেছে। গুলি বর্ষনসহ দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে নারী শিশুসহ ১৪ জন আহত হয়। তাছাড়া উপজেলার কাঞ্চন পৌর এলাকায় একটি ঘর থেকে দেড়’শ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার রূপগঞ্জে চাঞ্চল্যেও সৃষ্টি করেছে। চনপাড়ায় পিস্তল, রামদা ও ১০টি চাপাতিসহ ৬ যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ। তারা চনপাড়া এলাকায় সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করত বলে জানা গেছে।
রূপগঞ্জ থানার তদন্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম সায়েদ বলেন, প্রতিটি খুনের ঘটনায় মামলা হয়েছে। তদন্ত চলছে। খুনের সাথে যারা জড়িত তাদের খুঁজে বের করা হবে।

-Advertisement-
সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  

ফেসবুকে যুক্ত থাকুন

-Advertisement-
-Advertisement-