শুক্রবার, ২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আজ শুক্রবার | ২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কুমিল্লায় সম্পাদকের বিরুদ্ধে মনোনয়ন ও পদ-পদবি বানিজ্যের অভিযোগ,তদন্তের দাবি

বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০ | ১১:৪৩ পূর্বাহ্ণ

কুমিল্লায় সম্পাদকের বিরুদ্ধে মনোনয়ন ও পদ-পদবি বানিজ্যের অভিযোগ,তদন্তের দাবি

বিশেষ প্রতিনিধি: কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রোশন আলী মাস্টারের বিরুদ্ধে দূনীতি,স্বজন প্রীতি, আত্মীয়করণ,মনোনয়ন বানিজ্য ও পদ-পদবি বানিজ্যের ব্যাপক অভিযোগ উঠেছে। জনশ্রুতি আছে কেন্দ্রে জমা দেওয়া জেলা কমিটিতে রোশন আলী মাস্টারের চাচাতো ভাই ভাতিজাসহ বেশ কয়েকজন আত্মীয়কে অন্তভুক্ত করেছে। এখবর জানাজানি হলে তৃনমূলের ত্যাগি-পোগখাওয়া নেতাকর্মীদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এদিকে আগামী ২০ অক্টোবর দাউদকান্দি উপজেলা পািরষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এই নির্বাচনে মনোনয়ন দেওয়ার চুক্তি করে জনৈক বশিরুল আলম মিয়াজির কাছ থেকে ৩০ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে রোশন আলী মাস্টার। বিধিবাম,তিনি মনোনয়ন পাননি। বিশাল অংকের এই টাকা ফেরত পেতে দফায় দফায় দেন দরবার চলছে বলে দলীয় একটি সত্রে জানাগেছে। দলীয় ওই সুত্রটি আরো জানায়, মোতাহার ও শিািশর নামের দুই দালাল এই টাকা লেনদেনের ধুতিয়ালী করেছে। জেলার ৭ টি উপজেলার তৃনমূলের নেতাকর্মীরা বলেছেন,রোশন আলী মাস্টারের মত এক রকম দূনীতি পরায়ন লোক কিভাবে দলের এই শীর্ষ পদটি বাগিয়ে নিলেঅ তা বোধগম্য নয়। এদিকে উপজেলা কমিটিতে বিভিন্ন পদে আসীন করতে হাইব্রিড ও দূর্নীতিবাজ ও অস্বস্থ অজনপ্রিয় অর্ধশতাধিক নেতাকর্মীদের কাছ থেকে প্রায় কোটি টাকার হাতিয়ে নিয়েছে বলে এলাকার লোকমুখে বলাবলি হচ্ছে। দলীয় সুত্র জানায়, তিনি জেলা আওয়ামীলীগের সেক্রেটারী হওয়ার পর গত ৭ মাসে তার নিজ এলাকা দেবিদ্বারে কোনো প্রগ্রামে উপস্থিত হননি। একটি বারের জন্য তিনি তার নিজ এলাকায় যায়নি। দেবিদ্বারের নেতাকর্মীরা জানায় রোশন আলী মাস্টার এলাকায় জনশূন্যতা হয়ে পরেছে। কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের তৃনমুল নেতাকর্মীরা এ বিষয়ে তদন্ত করে রোশন আলী মাস্টারকে তার পদ থেকে অব্যাহতির দাবি জানান।




সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  

ফেসবুকে যুক্ত থাকুন