বুধবার, ২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আজ বুধবার | ২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

দেয়াল ভেঙ্গেছে পুলিশ অভিযুক্ত হল ভূক্তভোগীরা,  জিম্মিদশা পরিবার এলাকা না ছাড়লে প্রাণনাশের হুমকি!

মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ৩:১৭ অপরাহ্ণ

দেয়াল ভেঙ্গেছে পুলিশ অভিযুক্ত হল ভূক্তভোগীরা,    জিম্মিদশা পরিবার এলাকা না ছাড়লে প্রাণনাশের হুমকি!

বিশেষ প্রতিনিধি:নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের মৌচাক এলাকার একটি বাড়ির ৬ পরিবার জিম্মিদশা থেকে মুক্তি পেলেও উল্টো পুলিশী হয়রানী ও সন্ত্রাসী মাসুম রানার হুমকির ভয়ে চরম আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে। এলাকা ছেড়ে চলে না গেলে পরিবারের সবাইকে হত্যা করবে এমন হুমকি প্রদান করায় জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সন্ত্রাসী মাসুম রানা ও তার ভাই আরমানের বিরুদ্ধে সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাতে থানায় জিডি করেছে মো: নজরুল ইসলাম রনি।

জানা গেছে, মিজমিজি মৌচাক বসির উদ্দিন মার্কেট এলাকায় ১৫ লাখ টাকা চাঁদার দাবিতে গত ২৪ সেপ্টেম্বর সকাল ১০ টা থেকে রাত ১১ টা পর্যন্ত আব্দুল জব্বারের পরিবার ও ভাড়াটিয়াসহ ৬ টি পরিবারকে ঘর বন্দি করে  জিম্মি করে রাখে একই এলাকার প্রভাবশালী সালাউদ্দিনের ছেলে সন্ত্রাসী মাসুম রানা। বাড়ির সামনের রাস্তার দুই পাশে ইটের দেয়াল ও প্রধান গেইটে তালা লাগিয়ে দেয়। খবর পেয়ে রাত ১১ টার দিকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে রাস্তার দেয়াল ভেঙ্গে বাড়ির সকল পরিবারকে জিম্মিদশা থেকে মুক্ত করে। জিম্মিদশা থেকে উদ্ধার হয়ে রাতেই সন্ত্রাসী মাসুম রানার বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে আব্দুল জব্বারের মেয়ে ঝ^র্ণা আক্তার। ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি হওয়া ওই ঘটনায় অভিযোগ করার পরও মামলা গ্রহন না করে থানার ওসি কামরুল ফারুক ২৬ সেপ্টেম্বর সকালে দুইপক্ষকে থানায় ডেকে নিয়ে আপোষ মিমাংশা করার বৈঠক বসে। দুইপক্ষ আপোষ মিমাংশায় রাজি হলে অগামী ৫ আক্টোবর ওসি নিজে উপস্থিত থেকে আমিন দিয়ে জমির সীমানা মেপে বিরোধ নিস্পত্তি করে দিবে বলে দুইপক্ষকে শান্ত থাকার পরামর্শ দেয়।

 এদিকে ওসির উদ্যোগে মিমাংশা বৈটক করার পরদিনই পুলিশ যে দেয়াল ভেঙ্গে আব্দুল জব্বারের পরিবার ও ভাড়াটিয়াদের মুক্ত করেছে সেই দেয়াল ভাঙ্গার অভিযোগে আব্দুল জব্বারের পরিবারের লোকজনের বিরুদ্ধে থানায় পাল্টা অভিযোগ দায়ের করা হয়। পরে ২৮ সেপ্টেম্বর সকালে থানার এআই আমিনুল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করতে যায়। দেয়াল ভাঙ্গার অভিযোগে পুলিশ ভূক্তভোগী পরিবারের উপর চাপ সৃষ্টি করে। অথচ পুলিশ দেয়াল ভেঙ্গেছে তার ছবি ও ভিডিও ফুটেজ দেখানোর পরও পুলিশ আব্দুল জব্বারের পরিবারের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করে বলে অভিযোগ জানায় ভূক্তভোগীরা।

অপরদিকে সন্ত্রাসী মাসুম রানা আব্দুল জব্বারের পরিবারকে বাড়ি ছেড়ে দিয়ে এলাকা থেকে চলে যেতে নানা ভাবে চাপ প্রয়োগ করছে। এলাকা না ছাড়লে পরিবারের সবাইকে হত্যা করবে বলে হুমকি প্রদান করছে। তাই জীবনের নিরাপত্তার জন্য সন্ত্রাসী মাসুম রানা ও তার ভাই আরমানের বিরুদ্ধে আব্দুল জব্বারের ছেলে মো: নজরুল ইসলাম রনি জিডি করেছে। কিন্তু পুলিশ হুমকিদাতা সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে কোন আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করছেন না বলে  ভূক্তভোগীদের অভিযোগ।




সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  

ফেসবুকে যুক্ত থাকুন