বুধবার, ২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আজ বুধবার | ২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সিদ্ধিরগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে হত্যার হুমকি দিলেন রাজাকার পুত্র মতি, থানায় অভিযোগ

শনিবার, ২৭ এপ্রিল ২০২৪ | ১০:১২ অপরাহ্ণ

সিদ্ধিরগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে হত্যার হুমকি দিলেন রাজাকার পুত্র মতি, থানায় অভিযোগ

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি:
সিদ্ধিরগঞ্জে ব্যবসায়িক বিরোধকে কেন্দ্র করে মো: আল আমিন (৪৪) নামে এক বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে হত্যার হুমকির অভিযোগ উঠেছে নাসিক ৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতি ও তার সহযোগীর বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী বাদী হয়ে গত শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযুক্তরা হলেন, নাসিক ৬ নং ওয়ার্ডের আইলপাড়া এলাকার মৃত বাদশা রাজাকারের ছেলে কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতি (৫৫) ও একই এলাকার মো: মাঈন উদ্দিন খন্দকারের ছেলে মো: মানিক খন্দকার (৪৮)।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী অভিযুক্তদের কাছ থেকে প্রায় দশ বছর যাবৎ নগদ ও বাকিতে চাউল এনে ব্যবসা করে আসছেন। সেই সুবাদে অভিযুক্তরা ভুক্তভোগীর নিকট প্রায় সাড়ে সতেরো লক্ষ টাকা পাওনা হয়। তার জন্য অভিযুক্তরা ভুক্তভোগীর নিজ নামীয় দুটি চেকের পাতা নেন। অভিযুক্তদের পাওনা টাকা বিভিন্ন তারিখে ব্যাংকের মাধ্যমে ভুক্তভোগী পরিশোধ করে অভিযুক্তদের দেওয়া চেকের পাতা দুটি চাইলে অভিযুক্তরা ভুক্তভোগীর কাছ থেকে পাওনা টাকা ব্যাংকের মাধ্যমে নিতে অস্বীকার করেন। গত ২৫ তারিখে ফের ভুক্তভোগী তার ব্যাংকের চেকের পাতা দুটি চাইলে অভিযুক্ত কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতির চাউলের গোডাউনের ম্যানেজার মো: জাফর মিয়া (৪০) ভুক্তভোগী বিভিন্ন সময়ে ব্যাংকের মাধ্যমে পরিশোধ করা টাকা অস্বীকার করে ক্যাশ টাকা দেওয়া জন্য বলেন। এবং চেকের পাতা দুটি দিতে অস্বীকার করেন। এরই জের ধরে একই তারিখে রাত ১০ টার সময় অভিযুক্তরা সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন আইলপাড়া এলাকায় ভুক্তভোগীর নিজ বাড়িতে এসে তাদের পাওনা টাকা এককালীন ক্যাশ দেওয়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের হুমকি প্রদান করেন। ভুক্তভোগী তাদের ব্যাংকের মাধ্যমে টাকা পরিশোধ করার কথা জানালে অভিযুক্তরা অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। এক পর্যায়ে ভুক্তভোগী তাদের গালিগালাজ করতে নিষেধ করলে অভিযুক্তরা ক্ষিপ্ত হয়ে হত্যা ও জখম করার হুমকি দিয়ে চলে যান বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

বিষয়টি জানতে অভিযুক্ত কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতির মুঠোফোনে ফোন দিয়েও তাকে পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বকর সিদ্দিক বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে পরে কথা হবে বলে ফোন কেটে দেন।

উল্লেখ্য, সিদ্ধিরগঞ্জের আলোচিত সমালোচিত ব্যাক্তি সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী যুবলীগের আহবায়ক ও নাসিক ৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতি। অবৈধ সম্পদ অর্জন ও অর্থ পাচারের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় বেশ কিছুদিন কারাভোগের পর সম্প্রতি তিনি জামিনে বেরিয়ে আসেন। অবৈধ সম্পদ অর্জন ও অর্থ পাচারের ঘটনায় দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলার চার্জশিট ভুক্ত আসামি যুবলীগের এই নেতা। পরবর্তীতে তার বিরুদ্ধে পরোয়ানা জারি করেন আদালত। গ্রেফতার হয়ে জেলও খেটেছেন বেশ কিছুদিন।##




সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  

ফেসবুকে যুক্ত থাকুন