শুক্রবার, ২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আজ শুক্রবার | ২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সাংবাদিক পুত্রকে মাথা থেঁতলে ও পাশবিক নির্যাতন করে হত্যা

বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট ২০২০ | ৩:৩৬ পূর্বাহ্ণ

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সাংবাদিক পুত্রকে মাথা থেঁতলে ও পাশবিক নির্যাতন করে হত্যা

নারায়ণগঞ্জের ডাক.কম  ; রূপগঞ্জে মাথা থেঁতলে ও পাশবিক নির্যাতন করে সোহরাওয়ার্দী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাণিজ্য বিভাগের অনার্স তৃতীয় বর্ষের মেধাবী ছাত্র রিফাত হাসানকে (২২) হত্যা করেছে বন্ধুরা। নিহত বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী রিফাত হাসান দৈনিক ভোরের কাগজ পত্রিকার রূপগঞ্জ প্রতিনিধি নজরুল ইসলামের ছেলে।

গত শনিবার ভোর রাতে তাকে হত্যা করা হয়। রূপগঞ্জ উপজেলার তারাব পৌরসভার বরপা সুতালড়া এলাকায় ঘটে এ ঘটনা। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ বরপা এলাকার মইনউদ্দিন ভুইয়ার ছেলে রিফাত ভুইয়াকে গ্রেফতার করেছে।

রিফাত হাসানের পিতা নজরুল ইসলাম জানান, গত ৩১ জুলাই দিবাগত রাত ২ টার দিকে একই এলাকার রিফাত ভুইয়া নামে এক বখাটে যুবক তার ছেলে রিফাত হাসানকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। রিফাত ভুইয়া তার ছেলে রিফাত হাসানের বন্ধু হওয়ায় সুবাধে তাকে বাড়ির বাইরে যেতে নিষেধ করেনি। ওই রাতেই আড়াইটার দিকে নাহিদ নামে আরেক বখাটে যুবক রিফাত হাসানের মামা আসলাম ভুইয়াকে ফোন দিয়ে বলেন রিফাত হাসান আমাদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেছে ওর সঙ্গে আমাদের বোঝাপড়া আছে।

মামা আসলাম ভুইয়া ফোনের মাধ্যমে আসামীদের কোন ঝামেলা না করতে বুঝানো চেষ্টা করলেও তাদের আচরণ ছিল বেপোরোয়া। আসলাম ভুইয়া বিষয়টি নজরুল ইসলামকে জানালে তারা রিফাত হাসানকে নানা স্থানে খোজাখুজি করতে থাকে।

পথিমধ্যে মামলার এজাহারভূক্ত আসামী বাবু, মৃদুল, রাশেদ তাদের জানায়, রিফাত হাসান গুরুতর অসুস্থ হওয়ায় তাকে স্থানীয় ইউএস বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে নজরুল ইসলাম ও স্বজনরা ইউএস বাংলা হাসপাতালে গিয়ে রিফাত হাসানকে মূমুর্ষ অবস্থায় দেখতে পান। রিফাত হাসানের অবস্থার অবনতি হলে দ্রুত তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে ভর্তি করা হয়। সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রিফাত হাসান তার পরিবারকে ঘটনার বিবরণ দিয়ে বলেন, বরপা এলাকার মইনউদ্দিন ভুইয়ার ছেলে রিফাত ভুইয়া, একই এলাকার আনোয়ার হোসেনের ছেলে নাহিদ, রফিকুল ইসলামের ছেলে বাবু, মৃত আওলাদ হোসেনের ছেলে মৃদুল, মোশারফ হোসেনের ছেলে রাশেদসহ অজ্ঞাত আরো ৪/৫ জন রিফাত হাসানকে ৩১ জুলাই দিবাগত রাত ২ টার দিকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে পহেলা আগষ্ট ঈদের দিন ভোররাতে তাকে বরপা সুতালরা এলাকার স্কুলের সামনে পাকা রাস্তার উপর নিয়ে মাথা থেতলে ও শরীরে এলোপাথাড়িভাবে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন।

এবিষয়ে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল হাসান বলেন, এ ঘটনার সাথে আসামী রিফাত ভুইয়াকে গ্রেফতার করে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে জেলা আদালতে পাঠানো হলে আদালত ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। বাকী আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশ মাঠে রয়েছে।

এদিকে, বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী শিক্ষাথী ও সাবাংদিক পুত্র হত্যার ঘটনায় গোটা রূপগঞ্জে নিন্দার ঝড় বইছে। হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবী জানিয়ে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছেন রূপগঞ্জের সুশীল সমাজ, রাজনীতিবিদ, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষার্থীরা।




সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  

ফেসবুকে যুক্ত থাকুন